কাজ কাকে বলে,কাজ কত প্রকার ও কি কি

কাজ কাকে বলে? | কাজ কত প্রকার ও কি কি?

কাজ কাকে বলে: আজকে আমরা জানবো কাজ কাকে বলে? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন। আশা করি আপনারা এই প্রশ্নের উত্তর ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

কাজ কাকে বলে,কাজ কত প্রকার ও কি কি
কাজ কাকে বলে

কাজ কাকে বলে?

সাধারণত কোন কিছু করাকেই কাজ বলে। যেমন – মোটরসাইকেল চালানো,লেখাপড়া করা ইত্যাদি। তবে পদার্থবিজ্ঞানের ভাষায় কাজের সঙ্গাটা একটু ভিন্ন। পদার্থের ভাষায়, কোন বস্তুর উপর বল প্রয়োগ করলে যদি বস্তুটির সরণ ঘটে কেবলমাত্র তখনই কাজ করা হয়। তবে বল প্রয়োগ করার ফলে সরণ না ঘটলে কাজ হয় না।

এককথায়, কোনো বস্তুর উপর প্রযুক্ত বল এবং বলের দিকে বস্তুর সরণের গুণফলকে কাজ বলে। কাজকে W দ্বারা প্রকাশ করা হয়।

OR: কোন বস্তুর উপর বল প্রয়োগে যদি তার সরণে ঘটে তবে তাকে কাজ বলে। অর্থাৎ, বল ও বলের দিকে সরণের গুণফলকে কাজ বলে।

গাণিতিকভাবে,

W = F×s / কাজ = বল × সরণ

যেখানে:

  • F = বল
  • s = সরণ
  • কাজ স্কেলার রাশি যেখানে, বল এবং সরণ ভেক্টর রাশি।
  • কাজ ধনাত্মক, শূন্য বা ঋণাত্মক হতে পারে।

Also Read: Parts of speech কাকে বলে

কাজ কত প্রকার ও কি কি?

কাজ দুই প্রকার। যথাঃ

  1. ধনাত্মক কাজ
  2. ঋণাত্মক কাজ

ধনাত্মক কাজ কাকে বলে?

কোনো বস্তুর ওপর বল প্রয়োগে যদি বলের দিকে বস্তুর সরণ হয় অথবা বলের দিকে সরণের উপাংশ থাকে তবে ঐ বল দ্বারা কৃতকাজকে ধনাত্মক কাজ বা বলের দ্বারা কাজ বলে।

ঋণাত্মক কাজ কাকে বলে?

কোনো বস্তুর ওপর বল প্রয়োগের ফলে বলের বিপরীত দিকে বস্তুর সরণ ঘটলে বা বলের বিপরীত দিকে সরণের উপাংশ থাকলে যে কাজ সম্পন্ন হয় তাকে ঋণাত্মক কাজ বলে।

Also Read: ব্যাপন কাকে বলে

কাজের একক কি?

কাজের একক হলো জুল।

বলের একককে দূরত্বের একক দিয়ে গুণ করলে কাজের একক পাওয়া যায়। যেহেতু বলের একক নিউটন (N) এবং দূরত্বের একক হলো মিটার (m), সুতরাং কাজের একক হবে নিউটন মিটার (Nm)। একে জুল বলা হয়।

SOME FAQ:

50 J কাজ বলতে কী বুঝায়?

1N বল প্রয়োগের ফলে যদি বলের দিকে কোন বস্তুর সরণ 50 m হয়, তাহলে সম্পন্ন কাজের পরিমাণকে 50 J বলে।

তো আজকে আমরা দেখলাম যে কাজ কাকে বলে এবং আরো অনেক বিস্তারিত বিষয় । যদি পোস্ট ভালো লাগে তাহলে অব্যশয়, আমাদের বাকি পোস্ট গুলো ভিসিট করতে ভুলবেন না!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *