জাতি ও জাতীয়তার মধ্যে পার্থক্য কি

জাতি ও জাতীয়তার মধ্যে পার্থক্য কি?

জাতি ও জাতীয়তার মধ্যে পার্থক্য কি: আজকে আমরা জানবো জাতি ও জাতীয়তার মধ্যে পার্থক্য কি? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন। আশা করি আপনারা এই প্রশ্নের উত্তর ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

জাতি ও জাতীয়তার মধ্যে পার্থক্য কি

জাতি ও জাতীয়তার মধ্যে পার্থক্য কি?

জাতিজাতীয়তা
জাতি বলতে কতগুলো মানুষের সমষ্টিকে বুঝায় যারা রাজনৈতিক চেতনায় উদ্বুদ্ধ স্বাধীন বা স্বাধীনতা লাভে আগ্রহী।ঐতিহ্য, আশা ও আকাঙ্ক্ষা এবং ভৌগোলিক এলাকার ঐক্যসূত্রে আবদ্ধকে জাতীয়তা বলে।
জাতি একটি সুসংগঠিত আদর্শ।জাতীয়তা কিছু বোধ বা অনুভূতির সমন্বয় মাত্র।
বিশেষ কতকগুলো চেতনার সমন্বিত রূপের ক্রিয়া প্রতিক্রিয়া যা জাতির অস্তিত্বকে স্থায়িত্ব প্রদানে সহায়তা করে।জাতীয়তা হলো এসব চেতনার প্রাথমিক অবস্থা।
প্লেটো , অ্যারিস্টটল জাতি সম্পর্কে যে ধারণা প্রদান করেন তা বেশ প্রাচীন ।জাতীয়তার উৎপত্তি আধুনিক কালে। ম্যাকিয়াভেলির হাতে প্রথম জাতীয় ধারণার উৎপত্তি হয়।
জনসমাজ+রাজনৈতিক সংগঠন+স্বাধীনতানসমাজের সক্রিয় ধারণা + রাজনৈতিক চেতনা
জাতি হচ্ছে একটি বাস্তব ও সক্রিয় ধারণা।জাতীয়তা হলো একটি মানসিক অনুভূতি।

তো আজকে আমরা দেখলাম যে জাতি ও জাতীয়তার মধ্যে পার্থক্য কি এবং আরো অনেক বিস্তারিত বিষয় । যদি পোস্ট ভালো লাগে তাহলে অব্যশয়, আমাদের বাকি পোস্ট গুলো ভিসিট করতে ভুলবেন না!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *