প্রতিকার ও প্রতিরোধের মধ্যে পার্থক্য কি?

প্রতিকার ও প্রতিরোধের মধ্যে পার্থক্য কি: আজকে আমরা জানবো প্রতিকার ও প্রতিরোধের মধ্যে পার্থক্য কি? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন। আশা করি আপনারা এই প্রশ্নের উত্তর ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

প্রতিকার ও প্রতিরোধের মধ্যে পার্থক্য কি
প্রতিকার ও প্রতিরোধের মধ্যে পার্থক্য কি

প্রতিকার ও প্রতিরোধের মধ্যে পার্থক্য কি?

প্রতিকারপ্রতিরোধ
যখন কোন অসুখ, ঝামেলা, সমস্যা ইত্যাদি হয়ে যাওয়ার পর তা সুস্থ, মুক্ত বা সমাধান করার পক্রিয়াকে প্রতিকার বলা হয়।আর উক্ত অসুখ, ঝামেলা, সমস্যা যাতে তৈরিই না হয় তার পদক্ষেপ নিয়ে মোকাবেলা করার পক্রিয়াকে প্রতিরোধ বলা হয়।
ভাইরাস শরীরে প্রবেশ করে ফেলে, তাহলে শরীরের ভীতরে ভাইরাসকে নিশ্চিহ্ন করাই হল প্রতিকার। প্রতিকার মানে হচ্ছে রোগ মুক্ত হওয়া বা সেরে উঠা।প্রতিরোধ মানে বাধা প্রদান করা। যেমন ভাইরাস যেনো শরীরে প্রবেশ না করতে পারে তার জন্য নিজেকে সুরক্ষার মাধ্যমে ভাইরাসকে প্রতিরোধ করা।

তো আজকে আমরা দেখলাম যে প্রতিকার ও প্রতিরোধের মধ্যে পার্থক্য কি এবং আরো অনেক বিস্তারিত বিষয় । যদি পোস্ট ভালো লাগে তাহলে অব্যশয়, আমাদের বাকি পোস্ট গুলো ভিসিট করতে ভুলবেন না!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *