সুষম খাদ্য কাকে বলে

সুষম খাদ্য কাকে বলে? বিস্তারিত…..

সুষম খাদ্য কাকে বলে: আজকে আমরা জানবো সুষম খাদ্য কাকে বলে? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন। আশা করি আপনারা এই প্রশ্নের উত্তর ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

সুষম খাদ্য কাকে বলে,সুষম খাদ্যের উপকারিতা,সুষম খাদ্যের প্রয়োজনীয়তা,সুষম খাদ্যের তালিকা
সুষম খাদ্য কাকে বলে

সুষম খাদ্য কাকে বলে?

যে খাদ্যে মানবদেহের প্রয়োজনীয় সকল পুষ্টি উপাদান থাকে তাকে সুষম খাদ্য বলে।

যে সকল খাদ্যে সবকয়টি খাদ্য উপাদান (শর্করা, আমিষ, স্নেহ, ভিটামিন, খনিজ লবণ ও পানি) সঠিক অনুপাতে থাকে তাকে সুষম খাদ্য বলে। সুষম খাদ্য নির্বাচন এবং নিয়মিত আহার উন্নত জীবনের একটি পূর্বশর্ত। সুষম খাদ্য একজন মানুষের বিপাকের জন্য প্রয়োজনীয় শক্তির উৎস হিসেবে কাজ করে।

যে খাদ্যের মধ্যে প্রয়োজনীয় ৭টি উপাদান (কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, চর্বি, ভিটামিন, খনিজ, ফাইবার এবং পানি এই ৭টি খাদ্য উপাদান) সঠিক অনুপাতে উপস্থিত থাকে এবং যে খাদ্য গ্রহণ করলে ব্যাক্তির সুস্বাস্থ্য বজায় থাকে, তাকে সুষম খাদ্য বলে।

খাবারের ক্যালোরি সেই খাবারে সঞ্চিত শক্তির প্রতিনিধিত্ব করে। মানবদেহ প্রতিদিনের ক্রিয়াকলাপ যেমন শ্বাস-প্রশ্বাস, নড়াচড়া, চিন্তাভাবনা, হাঁটা এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ কার্য সম্পাদনের জন্য ক্যালোরি ব্যবহার করে। একজন ব্যক্তির বর্তমান ওজন বজায় রাখতে প্রতিদিন প্রায় 2000 ক্যালোরির প্রয়োজন হয়।

যাইহোক, দৈনিক ক্যালোরির চাহিদা ব্যক্তির লিঙ্গ, বয়স এবং শারীরিক কার্যকলাপের মাত্রা অনুযায়ী পরিবর্তিত হয়। উদাহরণস্বরূপ, পুরুষদের সাধারণত মহিলাদের চেয়ে বেশি ক্যালোরির প্রয়োজন হয়।

সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করে এমন পর্যাপ্ত ও পুষ্টিকর খাবার সুষম খাদ্যের অন্তর্ভুক্ত। একটি স্বাস্থ্যকর এবং সুষম খাদ্য রোগের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে এবং সামগ্রিক স্বাস্থ্যের উন্নতি করে।

Also Read: তল কাকে বলে

Also Read: পূর্ণ সংখ্যা কাকে বলে

সুষম খাদ্যের উপকারিতা

  • উন্নত স্মৃতিশক্তি এবং মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য।
  • ভাল মেজাজ এবং শক্তি স্তর.
  • একটি স্বাস্থ্যকর খাদ্য মানবদেহকে নির্দিষ্ট ধরণের রোগ থেকে রক্ষা করতে পারে,
  • অনাক্রম্যতা এবং স্বাস্থ্যকর বিকাশের জন্য খাদ্যের ভিটামিন এবং খনিজগুলি অত্যাবশ্যক,
  • স্বাস্থ্যকর খাবার পর্যাপ্ত শরীরের ওজনেও অবদান রাখতে পারে।

সুষম খাদ্যের প্রয়োজনীয়তা

  • এটি আমাদের দেহে সমস্ত প্রয়োজনীয় শর্করা, প্রোটিন, চর্বি, ভিটামিন এবং খনিজ সরবরাহ করে।
  • সুষম খাবার আমাদের শরীরকে অসংখ্য রোগ থেকে রক্ষা করে।
  • এটি আমাদের মস্তিষ্কের কার্যকারিতা উন্নত করে।
  • সুষম খাবার স্বাস্থ্যকর শরীরের ওজন বজায় রাখতে সহায়তা করে।
  • দেহ বৃদ্ধি এবং মেরামতে কাজ করে। তাছাড়া নতুন কোষ গঠনের জন্য এটিতে প্রোটিন, ভিটামিন এবং খনিজ আকারে পুষ্টি প্রয়োজন যা আমরা সুষম খাদ্য হতে পাই।

সুষম খাদ্যের তালিকা

  • শাকসবজি
  • মাছ, মাংস
  • শস্য জাতীয় খাবার
  • ফলমূল
  • দুধ, ডিম

সুষম খাদ্যের উপাদান কয়টি কি কি?

  • কার্বোহাইড্রেট
  • চর্বি
  • ভিটামিন
  • ফাইবার
  • পানি
  • সুষম খাদ্যের গুরুত্ব
  • খনিজ

তো আজকে আমরা দেখলাম যে সুষম খাদ্য কাকে বলে এবং আরো অনেক বিস্তারিত বিষয় । যদি পোস্ট ভালো লাগে তাহলে অব্যশয়, আমাদের বাকি পোস্ট গুলো ভিসিট করতে ভুলবেন না!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *