স্থিতিস্থাপকতা কাকে বলে,স্থিতিস্থাপক বস্তু কাকে বলে

স্থিতিস্থাপকতা কাকে বলে? | স্থিতিস্থাপক বস্তু কাকে বলে

স্থিতিস্থাপকতা কাকে বলে: আজকে আমরা জানবো স্থিতিস্থাপকতা কাকে বলে? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন। আশা করি আপনারা এই প্রশ্নের উত্তর ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

স্থিতিস্থাপকতা কাকে বলে,স্থিতিস্থাপক বস্তু কাকে বলে
স্থিতিস্থাপকতা কাকে বলে

স্থিতিস্থাপকতা কাকে বলে?

বাহ্যিক বল প্রয়ােগ করে কোনাে বস্তুর আকার বা আয়তন বা উভয়েরই পরিবর্তনের চেষ্টা করলে, যে ধর্মের ফলে বস্তুটি এই পরিবর্তনের প্রচেষ্টাকে বাধা দেয় এবং বাহ্যিক বল অপসারিত হলে বস্তু তার আগের আকার ও আয়তন ফিরে পায়, সেই ধর্মকে স্থিতিস্থাপকতা বলে।

স্থিতিস্থাপকতা (Elasticity) পদার্থ তথা বস্তুর একটি ভৌত ধর্ম। কোনো বস্তুর ওপর বাহ্যিক বল প্রয়োগের করলে যে ধর্মের ফলে বস্তুর আকারের পরিবর্তন হওয়া প্রচেষ্টাকে বাধা দেয় এবং বস্তুর ওপর থেকে বল সরিয়ে নেয়ার পর পূনরায় আগের অবস্থায় ফিরে যেতে পারার ধর্মকে পদার্থবিজ্ঞানের ভাষায় স্থিতিস্থাপকতা বলা হয়।

কোন বস্তুর উপর F বল প্রয়োগের ফলে বস্তুটির x সরণ ঘটলে,
F=−kxF=−kx
যেখানে k একটি ধ্রুবক যাকে হার বা স্প্রিং ধ্রুবক বলা হয়।

বল এবং সরণের পরিবর্তে স্থিতিস্থাপকতার সূত্রকে পীড়ন (stress, σσ ) এবং প্রলম্বনের (strain, ϵϵ ) মধ্যবর্তী সম্পর্ক হিসেবেও প্রকাশ করা যায়,

σ=Eϵσ=Eϵ

যেখানে E আরেকটি ধ্রুবক যাকে স্থিতিস্থাপকতার গুণাঙ্ক বা ইয়ং-এর গুণাঙ্ক বলা হয়।

রাবারের চেয়ে ইস্পাত বেশি স্থিতিস্থাপক কেন?

যদি একই পরিমাণ বল একটি স্টিলের তারে এবং একই দৈর্ঘ্যের এবং প্রস্থচ্ছেদের ক্ষেত্রফলের রাবার দিয়ে তৈরি একটি তারে প্রয়োগ করা হয়,

তাহলে রাবার তারের প্রসারণ ইস্পাত তারের প্রসারণের চেয়ে সহজ।
সুতরাং, এটা বলা যেতে পারে যে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ চাপের জন্য, ইস্পাতে উত্পাদিত টান রাবারে উত্পাদিত স্ট্রেনের তুলনায় তুলনামূলকভাবে কম।

Also Read: কম্পাঙ্ক কাকে বলে

অতএব, ইয়ং এর মডুলাসের সাহায্যে, এটি উপসংহারে পৌঁছানো যেতে পারে যে ইস্পাত রাবারের চেয়ে বেশি স্থিতিস্থাপকতা রয়েছে।

SOME FAQ:

স্থিতিস্থাপক বস্তু কাকে বলে?

যে সকল বস্তুর স্থিতিস্থাপকতা গুণ আছে তাদের স্থিতিস্থাপক বস্তু (Elastic) বলে।

সবচেয়ে স্থিতিস্থাপক বস্তু কি?

ইস্পাত সবচেয়ে স্থিতিস্থাপক উপাদান।

তো আজকে আমরা দেখলাম যে স্থিতিস্থাপকতা কাকে বলে এবং আরো অনেক বিস্তারিত বিষয় । যদি পোস্ট ভালো লাগে তাহলে অব্যশয়, আমাদের বাকি পোস্ট গুলো ভিসিট করতে ভুলবেন না!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *