ইন্টারনেট কাকে বলে,ইন্টারনেটের সুবিধা গুলো কি কি,ইন্টারনেটের অসুবিধা গুলো কি কি

ইন্টারনেট কাকে বলে? | ইন্টারনেটের সুবিধা গুলো কি কি | ইন্টারনেটের অসুবিধা গুলো কি কি

ইন্টারনেট কাকে বলে: আজকে আমরা জানবো ইন্টারনেট কাকে বলে? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন। আশা করি আপনারা এই প্রশ্নের উত্তর ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

ইন্টারনেট কাকে বলে,ইন্টারনেটের সুবিধা গুলো কি কি,ইন্টারনেটের অসুবিধা গুলো কি কি

ইন্টারনেট কাকে বলে,ইন্টারনেটের সুবিধা গুলো কি কি,ইন্টারনেটের অসুবিধা গুলো কি কি
ইন্টারনেট কাকে বলে

ইন্টারনেট কাকে বলে?

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অনেকগুলো নেটওয়ার্কের সমন্বিত ব্যবস্থার নামই ইন্টারনেট

ইন্টারনেট হলো পৃথিবী জুড়ে বিস্তৃত অসংখ্য নেটওয়ার্কের সমন্বয়ে গঠিত একটি বৃহৎ নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা।

অনেক গুলো কম্পউটার এক সাথে যুক্ত করে একটি নেটওয়ার্ক এর সাথে যুক্ত করে আর একটি নেটওয়ার্ক এর সাথে যুক্ত করাই হলো ইন্টারনেট। তাই একে ইন্টারনেটওয়ার্কিংও বলা হয়।

ইন্টারনেট নেটওয়ার্কের এমন একটি বিশাল জাল, যেটা পুরো বিশ্বের কম্পিউটার নেটওয়ার্কের সাথে পরস্পরে সংযুক্ত হয়ে আছে এবং এই কম্পিউটার নেটওয়ার্ক পরস্পরে একে আরেকটি ডিভাইসের সাথে বিশ্বব্যাপী লিংক বা কানেক্ট হওয়ার জন্য Internet protocol suite(TCP/IP) ব্যবহার করেন।

১৯৬৯ সালে মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তরের অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলার উদ্দেশ্যে (Advance Research Project Agency Network) ARPANET নামক প্রজেক্টের মাধ্যমে ইন্টারনেটের পত্তন হয়।

পরবর্তীতে ১৯৮২ সালে বিভিন্ন কম্পিউটারের মধ্যে নেটওয়ার্ক সংযোগ স্থাপনে উপযোগী টিসিপি/আইপি (TCO/IP-Transmission Control Protocol/ Internet Protocol) উদ্ভাবিত হলে প্রথম আধুনিক ইন্টারনেটের ধারণা প্রতিষ্ঠিত হয়।

Also Read: পরিমাপের একক কাকে বলে

ইন্টারনেটের সুবিধা গুলো কি কি

  • ইন্টারনেটে যুক্ত হয়ে কাঙ্ক্ষিত তথে্যর নাম লিখে সার্চ করলেই বিশ্বের অসংখ্য সার্ভারে থাকা তথ্যগুলো প্রদর্শিত হয়।
  • বিভিন্ন ধরণের সফটওয়ার, ফ্রিওয়্যার, বিনোদন উপকরণ খুব সহজেই ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করা যায়।
  • ইন্টারনেট এর মাধ্যমে খুব সহজেই চিকিৎসা সেবা নেওয়া যায়।
  • ইন্টারনেট এর মাধ্যমে ঘরে বসে পণ্য কেনাবেচা করা যায়।
  • ইন্টারনেট এর মাধ্যমে খুব সহজেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পত্রপত্রিকা পড়া যায়।
  • ইন্টারনেট এর মাধ্যমে ঘরে বসেই বিশ্বের নামকরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা গ্রহণ করা যায়।
  • ইন্টারনেটের মাধ্যমে মূহুর্তেই বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে ই-মেইল পাঠানো যায়।
  • ইন্টারনেটের মাধ্যমে ফ্যাক্স সুবিধা পাওয়া যায়।

ইন্টারনেটের অসুবিধা গুলো কি কি

  • ইন্টারনেটের মাধ্যমে বাণিজ্যের ক্ষেত্রে পণ্য বা সেবার মান সর্বদা সুনিশ্চিত করা সম্ভব হয় না।
  • ইন্টারনেটের মাধ্যমে কম্পিউটার হ্যাকিং, ভাইরাস বা ম্যালওয়ার সংক্রমণ, স্প্যামিং প্রভূর্তি আক্রমণের ঝুঁকি থাকে।
  • দীর্ঘসময় ইন্টারনেট ব্যবহারে ব্যবহারকারীর নানা ধরণের স্বাস্থ্যহানীর শিকার হয়ে থাকে।
  • ইন্টারনেটে অনলাইন গেমস,সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মাত্রাহীন আড্ডা, কুরুচিপূর্ণ বিষয়ের চর্চা প্রভূতি বিষয়গুলো শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার মনোযোগ ও সময় নষ্ট করে বলে তার ফলাফলে বির্পযয় ঘটতে পারে।

তো আজকে আমরা দেখলাম যে ইন্টারনেট কাকে বলে এবং আরো অনেক বিস্তারিত বিষয় । যদি পোস্ট ভালো লাগে তাহলে অব্যশয়, আমাদের বাকি পোস্ট গুলো ভিসিট করতে ভুলবেন না!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *