বর্তনী কাকে বলে,তড়িৎ বর্তনী কত প্রকার

বর্তনী কাকে বলে? | তড়িৎ বর্তনী কত প্রকার?

বর্তনী কাকে বলে: আজকে আমরা জানবো বর্তনী কাকে বলে? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন। আশা করি আপনারা এই প্রশ্নের উত্তর ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

বর্তনী কাকে বলে,তড়িৎ বর্তনী কত প্রকার

বর্তনী কাকে বলে,তড়িৎ বর্তনী কত প্রকার
বর্তনী কাকে বলে

বর্তনী কাকে বলে?

তড়িৎ প্রবাহ চলার এই সম্পূর্ণ পথকেই তড়িৎ বর্তনী বলে।

তড়িৎ বর্তনী হলো এমন একটি পথ বা রেখা যা দিয়ে তড়িৎ প্রবাহিত হয়। সুতরাং, তড়িৎ বর্তনী এমন একটি সম্পূর্ণ রুট যা বৈদ্যুতিক স্রোতকে চারদিকে প্রবাহিত করতে পারে।

উদাহরণস্বরূপ, একটি সাধারণ বর্তনীতে দুটি উপাদান থাকতে পারেঃ একটি ব্যাটারি এবং একটি বাতি। বর্তনী ব্যাটারি থেকে প্রদীপে তড়ীৎ/বিদ্যুৎ মাধ্যমে প্রবাহিত করতে পারে বা আদান-প্রদান করতে পারে। সুতরাং, বর্তনীটি একটি সম্পূর্ণ লুপ তৈরি করে।

তড়িৎ বর্তনিকে একটি চাবি বা সুইচের মাধ্যমে চালু/বন্ধ করা যায়। বর্তনীর সুইচ চাপলে তড়িৎ প্রবাহিত হবে এবং বর্তনীর সুইচ বন্ধ থাকলে বিদ্যুৎ/তড়িৎ প্রবাহিত হবে না।

Also Read: অনুরূপ কোণ কাকে বলে

তড়িৎ বর্তনী কত প্রকার?

বৈদ্যুতিক বর্তনি/তড়িৎ বর্তনী দুই প্রকারঃ

  1. শ্রেণিসংযোগ বর্তনী
  2. সমান্তরাল সংযোগ বর্তনী

তড়িৎ বর্তনী সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যকণিকাঃ

  • প্রতিটি বাল্বের বিভব পার্থক্য সমান থাকবে— সমান্তরাল সমবায়ে।
  • তড়িৎ প্রবাহ চলার সম্পূর্ণ পথকে বলা হয়— তড়িৎ বর্তনী।
  • গৃহে বিদ্যুতায়নের জন্য সুবিধাজনক— সমান্তরাল সমবায়।
  • তড়িৎ প্রবাহ পরিমাপের জন্য ব্যবহৃত হয়— অ্যামিটার।
  • বর্তনীর দুইপ্রান্ত সংযুক্ত থাকে তড়িৎ কোষের— ধনাত্মক ও ঋণাত্মক প্রান্তে।
  • সাধারণত বর্তনীতে তড়িৎযন্ত্র ও উপকরণসমূহ সংযুক্ত করা হয়— দুইভাবে।
  • অ্যামিটারকে বর্তনীর সাথে সংযুক্ত করা হয়— শ্রেণি সমবায়ে।
  • বর্তনীতে ভোল্টমিটার সংযুক্ত করা হয়— সমান্তরালে।
  • সমান্তরাল সংযোগে প্রতিটি রোধের জন্য একই থাকে— বিভব পার্থক্য।
  • প্রতিটি বাল্ব পৃথক পৃথকভাবে জ্বালানো বা নিভানো যাবে— সমান্তরাল সংযোগ।

Also Read: পরাগায়ন কাকে বলে

SOME FAQ:

বাসা বাড়িতে কোন বর্তনী ব্যবহার করা হয়?

বাসা বাড়িতে বিদ্যুৎ পরিবহনের জন্য সাধারণত সমান্তরাল বা একুমুখী তড়ি প্রবাহ ব্যবহার করা হয়।

সমান্তরাল বর্তনী কাকে বলে?

যে বর্তনীতে বৈদ্যুতিক সংযোগগুলো একটার পর একটা সাজানো হয় তাকে সমান্তরাল বর্তনী বলে।

সমান্তরাল বর্তনীর উদাহরণ কি?

বাতানুকূল যন্ত্র, দূরদর্শন, ফ্রিজ, বাতি, পাখা ইত্যাদি সমান্তরাল বর্তনীর উদাহরণ।

শ্রেণি বর্তনী কাকে বলে?

যে বর্তনীতে বৈদ্যুতিকসংযোগগুলো বিভিন্নভাবে সাজানো হয় তাকে শ্রেণি বর্তনী বলে।

শ্রেণি বর্তনীর উদাহরণ কি?

ব্যাটিরি।

কোন তড়িৎ বর্তনীতে সমান্তরাল সংযুক্ত করা হয়?

বৈদ্যুতিক বর্তনীতে সমান্তরাল সংযোগ থাকে।

তো আজকে আমরা দেখলাম যে বর্তনী কাকে বলে এবং আরো অনেক বিস্তারিত বিষয় । যদি পোস্ট ভালো লাগে তাহলে অব্যশয়, আমাদের বাকি পোস্ট গুলো ভিসিট করতে ভুলবেন না!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *