শিক্ষা কাকে বলে

শিক্ষা কাকে বলে? | shikkha kake bole? |

শিক্ষা কাকে বলে: আজকে আমরা জানবো শিক্ষা কাকে বলে? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন। আশা করি আপনারা এই প্রশ্নের উত্তর ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

শিক্ষা কাকে বলে
শিক্ষা কাকে বলে

শিক্ষা কাকে বলে?

সাধারণ অর্থে বলতে গেলে শিক্ষা বলতে জ্ঞান বা দক্ষতা অর্জনকে বোঝায়। ব্যাপক অর্থে পদ্ধতিগতভাবে জ্ঞানলাভের প্রক্রিয়াকে শিক্ষা বলে।

শিক্ষা লাভের ফলে মানুষের আচরণের কাঙ্ক্ষিত, বাঞ্চিত এবং ইতিবাচক পরির্বতনই হয়। যুগে যুগে নানা মনীষী গণ নানাভাবে শিক্ষাকে সজ্ঞায়িত করেছেন।

শিক্ষা প্রক্রিয়ায় কোন ব্যক্তির অন্তর্নিহিত গুণাবলীর পূর্ণ বিকাশের জন্য উৎসাহ দেয়া হয় এবং সমাজের একজন উৎপাদনশীল সদস্য হিসেবে প্রতিষ্ঠালাভের জন্য যে সকল দক্ষতা প্রয়োজন সেগুলো অর্জনে সহায়তা করা হয়। সাধারণ অর্থে জ্ঞান বা দক্ষতা অর্জনই শিক্ষা

Also Read: এসিড কাকে বলে?

ব্যাপক অর্থে পদ্ধতিগতভাবে জ্ঞানলাভের প্রক্রিয়াকেই শিক্ষা বলে। তবে শিক্ষা হল সম্ভাবনার পরিপূর্ণ বিকাশ সাধনের অব্যাহত অনুশীলন। বাংলা শিক্ষা শব্দটি এসেছে ‍’শাস’ ধাতু থেকে।

যার অর্থ শাসন করা বা উপদেশ দান করা। অন্যদিকে শিক্ষার ইংরেজি প্রতিশব্দ এডুকেশন এসেছে ল্যাটিন শব্দ এডুকেয়ার বা এডুকাতুম থেকে। যার অর্থ বের করে আনা অর্থাৎ ভেতরের সম্ভাবনাকে বাইরে বের করে নিয়ে আসা বা বিকশিত করা।

Also Read: কোয়ান্টাম সংখ্যা কাকে বলে

শিক্ষা কত প্রকার?

সততাই মানব জীবনের প্রকৃত শিক্ষা বাকিগুলো সব দক্ষতা। এ দৃষ্টিকোণ থেকে শিক্ষা দুই প্রকার:

  1. চারিত্রিক শিক্ষা।
  2. কারিগরি বা সৃজনশীল শিক্ষা।

এ দুটো একে অপরের সাথে এমনভাবে জড়িত যে এদেরকে পরস্পরের থেকে আলাদা করা কঠিন। কারণ যে ব্যক্তি চরিত্রবান হয় সে কোন একটি বিষয়ে অবশ্যই দক্ষ হয়। আবার যে ব্যক্তি কোন একটি বিষয়ে অনেক দক্ষ হয় সেও অনেক চরিত্রবান হয়। দক্ষতা অর্জন করতে গিয়ে শৃঙ্খলা রক্ষার তাগিদেই মানুষ চরিত্রবান হতে বাধ্য হয়। তবে যে চরিত্রকে প্রাধান্য দেয় সেই এগিয়ে থাকে।

see More

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *