শ্বসন কাকে বলে,শ্বসন কত প্রকার ও কি কি,শ্বসনের স্থান ও শ্বসনের সময়,শ্বসনের রাসায়নিক সমীকরণ

শ্বসন কাকে বলে? | শ্বসন কত প্রকার ও কি কি?

শ্বসন কাকে বলে: আজকে আমরা জানবো শ্বসন কাকে বলে? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে আমাদের এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন। আশা করি আপনারা এই প্রশ্নের উত্তর ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

শ্বসন কাকে বলে.শ্বসন কত প্রকার ও কি কি.শ্বসনের স্থান ও শ্বসনের সময়.শ্বসনের রাসায়নিক সমীকরণ

শ্বসন কাকে বলে,শ্বসন কত প্রকার ও কি কি,শ্বসনের স্থান ও শ্বসনের সময়,শ্বসনের রাসায়নিক সমীকরণ
শ্বসন কাকে বলে

Table of Contents

শ্বসন কাকে বলে?

যে জৈব রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় দ্বারা অক্সিজেনের উপস্থিতিতে বা অনুপুস্থিতিতে খাদ্যের দৈহিক জারণের ফলে খাদ্য স্থিতিশক্তি গতি শক্তিতে রূপান্তরিত হয় ও মুক্ত হয় তাকে শ্বসন বলে।

OR: যে জৈব রাসায়নিক প্রক্রিয়ায় কোশস্থিত খাদ্যবস্তু জারিত হয়ে খাদ্যস্থ স্থৈতিশক্তি গতি বা তাপশক্তিতে রূপান্তরিত ও মুক্ত হয় এবং কার্বন ডাইঅক্সাইড ও জল উৎপন্ন হয়, তাকে শ্বসন বলে।

শ্বসনের স্থান ও শ্বসনের সময়

প্রতিটি সজীব কোষে শ্বসন দিনরাত ঘটে। শ্বসনের প্রথম পর্যায় অর্থাৎ গ্লাইকোলাইসিস প্রক্রিয়া কোষের সাইটোপ্লাজমে ঘটে এবং দ্বিতীয় পর্যায় অর্থাৎ ক্রেবস চক্র কোষের কোষ- অঙ্গাণু মাইটোকন্ড্রিয়ায় ঘটে।

শ্বসনের অধিকাংশ রাসায়নিক বিক্রিয়াগুলি মাইটোকন্ড্রিয়াতে ঘটায় মাইটোকন্ড্রিয়াকে কোষের শক্তিঘর বলে। শ্বসনের সময় প্রচুর পরিমাণে ATP (38 অণু) উৎপন্ন হয়—যার মধ্যে শক্তি সঞ্চিত থাকে। ATP-র মধ্যে শক্তি সঞ্চিত থাকায় ATP-কে এনার্জি কারেন্সি শক্তির ভাণ্ডার বলে।

শ্বসনের রাসায়নিক সমীকরণ

শ্বসনের সময় কোশস্থিত খাদ্যবস্তু অর্থাৎ গ্লুকোজ ( C₆H₁₂O₆ ) অক্সিজেনের উপস্থিতিতে জারিত হয়ে কার্বন-ডাই-অক্সাইড, জল এবং শক্তি উৎপন্ন করে। অতএব, শ্বসনের রাসায়নিক সমীকরণটি হল-

C₆H₁₂O₆ + 6O₂ ——উৎসেচক—– 6CO₂ + 6H₂O + 686 Kcal

শ্বসন কত প্রকার ও কি কি?

শ্বসন প্রধানত দুই প্রকার, যথা–

  1. সবাত শ্বসন
  2. অবাত শ্বসন

১। সবাত শ্বসন

যে শ্বসন প্রক্রিয়ায় অক্সিজেনের প্রয়োজন হয় এবং শ্বসনিক বস্তু সম্পূর্ণভাবে জারিত হয়ে CO2, H2O ও বিপুল পরিমাণ শক্তি উৎপন্ন হয় তাকে সবাত শ্বসন বলে।

২। অবাত শ্বসন

যে শ্বসন প্রক্রিয়ায় কোনো শ্বসনিক বস্তু অক্সিজেনের সাহায্যে ছাড়াই কোষ মধ্যস্থ এনজাইম দ্বারা আংশিকরূপে জারিত হয়ে বিভিন্ন প্রকার জৈব যৌগ, CO2 ও সামান্য পরিমাণ শক্তি উৎপন্ন করে তাকে অবাত শ্বসন বলে।

SOME FAQ:

শ্বসনকে অপচিতি বিপাক বলে কেন?

শ্বসনের ফলে কোশস্থিত জৈববস্তু জারিত হয়ে শক্তি, জল ও কার্বন ডাইঅক্সাইড নির্গত হয়, জীবদেহের শুষ্ক ওজন হ্রাস পায়, তাই শ্বসনকে অপচিতি বিপাক বলে।

শ্বসনকে শক্তিমােচী প্রক্রিয়া বলে কেন?

শ্বসন প্রক্রিয়ায় শ্বসনবস্তু জারিত হয়ে উচ্চশক্তি সম্পন্ন ATP যৌগ উৎপন্ন হয় এবং শক্তির মােচন ঘটে। তাই শ্বসনকে শক্তিমােচী বা তাপমােচী প্রক্রিয়া বলে।

কেশীয় শ্বসন কাকে বলে?

কোশ মধ্যস্থ জৈব বস্তুর উৎসেচক বিক্রিয়া মাধ্যমে পর্যায়ক্রমিক জারণ ও শক্তি উৎপাদন পদ্ধতিকে কোশীয় শ্বসন বলে। যথা—গ্লাইকোলাইসিস, ক্রেবস্ চক্র ইত্যাদি।

শ্বসন কখন হয়?

দিবারাত্রি।

শ্বসন কোথায় হয়?

প্রতিটি সজীব কোষে শ্বসন ঘটে।

কোন্ কোষ অঙ্গাণুর মধ্যে শ্বসন ক্রিয়াটি (বা ক্রেবস্ চক্রটি) সম্পন্ন হয়?

মাইট্রোকন্ডিয়া।

কন উদ্ভিদ এবং প্রাণিদেহে অবাত শ্বসন ঘটে?

ঈস্ট, মনোসিস্টিস

কোহল সন্ধানে কোন উৎসেচক অংশগ্রহণ করে?

জাইমেজ।

বায়ুশূন্য স্থানে শ্বাসকার্য চালাতে পারে এমন দুটি জীবের উদাহরণ দাও?

মনোসিস্টিস, গোলকৃমি, ফিতাকৃমি।

কোহল সন্ধান কোন প্রকার জীবাণু দ্বারা ঘটে?

ঈস্টের দ্বারা‌

শ্বসনে মোট কত অনু এটিপি উৎপন্ন হয়?

শ্বসনে মোট 38 অনু এটিপি উৎপন্ন হয়।

কোন্ ব্যাটিরিয়ার দেহে অবাত শ্বসন ঘটে?

ডিনাইট্রিফাইং ব্যাকটেরিয়া, মিথেন ব্যাকটেরিয়া।

এক গ্রাম মােল গ্লুকোজ জারিত হলে কত ক্যালরি তাপশক্তি উৎপন্ন হয় ?

686 ক্যালরি তাপশক্তি উৎপন্ন হয়।

ভােকাল কর্ড কোথায় অবস্থিত? এর কাজ কি?

গলায় অবস্থিত ল্যারিংস বা বাগযন্ত্রের মধ্যে দুটি ভোকাল কর্ড থাকে।
ভোকাল কর্ডের কাজ হল স্বর সৃষ্টি করা।

একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ মিনিটে কতবার শ্বাসকার্য চালায়?

একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ মিনিটে 14-18 বার শ্বাসকার্য চালায়।

গলবিলের মিউকাস পর্দা কোন প্রাণীর শ্বসনে সাহায্য করে?

ব্যাঙ

কোন্ প্রাণীর সিক্ত চামড়া শ্বাসকার্যে অংশগ্রহণ করে ?

কেঁচো, জোঁক

ব্যাঙাচির শ্বাস অঙ্গের নাম কি?

বহিঃফুলকা।

প্রাণিদের শ্বসনে সহায়ককারী দুটি অঙ্গের নাম কি?

ফুলকা , ফুসফুস।

ক্রেবস চক্রকে সাইট্রিক অ্যাসিড চক্র বলে কেন?

ক্রেবস চক্রে প্রথম উৎপাদিত যৌগ সাইট্রিক অ্যাসিড বলে এই চক্রকে সাইট্রিক অ্যাসিড চক্র বলে।

বায়ুমণ্ডলে O₂ এবং CO₂-এর পরিমাণ কত?

বায়ুমণ্ডলে অক্সিজেনের পরিমাণ 20.95% এবং কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ 0.03%

নিঃশ্বাস বায়ুতে O₂ এবং CO₂-এর পরিমাণ কত?

নিঃশ্বাস বায়ুতে অক্সিজেনের পরিমাণ 16.3% এবং নিঃশ্বাস বায়ুতে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ 4.0%.

R.Q কি?

শ্বসনকালে দেহে জারণ ক্রিয়ার নির্গত কার্বন ডাই অক্সাইড এবং গৃহীত অক্সিজেন এর ঘনমানের অনুপাতকে Respiratory Quotient বা শ্বসন অনুপাত বলে।

P.Q. কি?

সালোকসংশ্লেষ প্রক্রিয়ায় নির্গত অক্সিজেন এবং গৃহীত কার্বন-ডাই-অক্সাইডের ঘনমানের অনুপাতকে P.Q বা ফটোসিন্হেটিক কোসেন্ট বা সালোকসংশ্লেষীয় অনুপাত বলে। যথা-
P.Q= 6O₂/6CO₂= 1

উদ্ভিদের কোন কোন জৈবিক ক্রিয়ার মাধ্যমে বায়ুমণ্ডলের O₂ এবং CO₂-এর সমতা বজায় থাকে?

সালোকসংশ্লেষ এবং শ্বসন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বায়ুমণ্ডলের O₂ এবং CO₂-এর সমতা বজায় থাকে।

শ্বসন বস্তু কাকে বলে?

শ্বসনকালে সজীব কোষে যে সমস্ত বস্তু জারিত হয়ে শক্তি উৎপন্ন করে তাদের শ্বসন বস্তু বলে।

উদ্ভিদদেহে শ্বসনের বিপরীত জৈবিক ক্রিয়াটি কি?

সালোকসংশ্লেষ।

শ্বসন কিরূপ বিপাক ?

শ্বসন একটি অপচিতি বিপাক।

ফুসফুস বই কোন প্রাণীর শ্বাস অঙ্গ?

মাকড়সা ও কাঁকড়াবিছে এদের শ্বাস অঙ্গের নাম বুক লাঙ বা বই ফুসফুস।

অতিরিক্ত শ্বাস অঙ্গবিশিষ্ট দুটি প্রাণীর নাম কি?

কই, মাগুর, শিঙি

ফুসফুসের আবরণীর নাম কি?

ফুসফুসের আবরণীর নাম প্লুরা।

প্লুরার স্তর দুটি কি কি ?

প্লুরার স্তর দুটি হল প্লুরা ভিসেরাল স্তর ও প্যারাইটাল স্তর ।

অবাত শ্বসনের ফলে উৎপন্ন পদার্থগুলি কি কি?

জল, কার্বন-ডাই-অক্সাইড, নাইট্রাইট যোগ এবং শক্তি

সবাত শ্বসনের ফলে উৎপন্ন পদার্থগুলি কি কি?

কার্বন ডাই অক্সাইড, জল এবং শক্তি

শ্বসন প্রক্রিয়ায় উৎপন্ন শক্তিকে কি বলে?

শ্বসন বস্তু বলে।

তো আজকে আমরা দেখলাম যে শ্বসন কাকে বলে এবং আরো অনেক বিস্তারিত বিষয় । যদি পোস্ট ভালো লাগে তাহলে অব্যশয়, আমাদের বাকি পোস্ট গুলো ভিসিট করতে ভুলবেন না!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *